• মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০২:২২ অপরাহ্ন
  • Bengali Bengali English English
নোটিশ :
* ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে দেশবাসীকে বীরযোদ্ধা অনলাইন পত্রিকার পক্ষ থেকে জানাই প্রাণ ঢালা অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা * বিভিন্ন বিভাগ, জেলা ও উপজেলাতে অভিজ্ঞ সংবাদকর্মী  আবশ্যক। আগ্রহীদের নিম্নে ঠিকানায় যোগাযোগ করার জন্য জানানো যাচ্ছে।

হোসেনপুর-পাকুন্দিয়া রাস্তা ভেঙ্গে যান চলাচল বন্ধ

বীরযোদ্ধা / ৭৯
প্রকাশিত : ৪:৫০ পিএম, (সোমবার) ৯ আগস্ট ২০২১

আশরাফ আহমেদ : 

কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর-পাকুন্দিয়া টু ঢাকা মহাসড়কের কাওনা বাজার এলাকায় নরসুন্দা নদের ওপর নির্মানাধীন সেতু সংলগ্ন ডাইভারসন রাস্তাটি ভেঙ্গে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে দুই উপজেলার হাজার হাজার পথচারি চরম দুর্ভোগে পড়েছেন। তাই ভুক্তভোগিরা এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করে জরুরি প্রতিকার দাবি করেছেন।

হোসেনপুর উপজেলা প্রকৌশল অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে ১২০ ফুট দৈর্ঘের সেতু নির্মাণের কাজ পায় জেলার এস আলম নামের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। যার পশ্চিম পাশ দিয়ে শুকনা মৌসুমে নদের পানি প্রবাহের জন্য ডাইভারসনের ব্যবস্থা রাখা হয় নাই। অভিজ্ঞদের মতে এ রকম সেতু নির্মাণের ক্ষেত্রে ডাইভারসনে আরসিসি পাইপ অথবা বেইলী দিয়ে গাড়ি পারাপারের ব্যবস্থা রাখতে হয়।কিন্তু কাওনা সেতুতে সে রকম কোন ব্যবস্থা না থাকায় নদের পানি রৃদ্ধি ও  কয়েক দিনের বৃষ্টিতে দুর্বল শুধু মাটির ডাইভারসন রাস্তাটি ভেঙ্গে যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।

সরেজমিনে গিযে দেখা যায়, সেতু নির্মাণের আশপাশে কোন সর্তকমূলক সাইনবোর্ড বা নিরাপত্তা বেষ্টনির ব্যবস্থা নেই। এমন কী কত টাকা ব্যয়ে কোন প্রতিষ্ঠান তা বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছে সে রকম কোন কিছুই দৃষ্টি গোচরে নাই। যে জন্য অনেক অচেনা যাত্রী এ রাস্তায় চলে এসে সেখান থেকে আবার পিছন দিকে ১৫ থেকে ২০ কিলো মিটার ঘুরে গিয়ে বিকল্প রাস্তায়  পাকুন্দিয়া কিংবা ঢাকার গস্তব্যে পৌঁছাতে হচ্ছে। এ সময় কথা হয় চর জামাইল গ্রামের বাসিন্দা ও উপজেলা কৃষক দলের আহবায়ক রবিউল আলম রবিন, কাওনা গ্রামের শামছুল আলম, আনোয়ার হোসেন রেনু, পাকুন্দিয়া উপজেলার দগদগা গ্রামের আব্দুল কাদির ইসমাইলসহ অন্তত ২০/২৫ জনের সাথে।

তাদের অভিযোগ, গত ৭ দিন ধরে হোসেনপুর-পাকুন্দিয়া সড়কে ভাংগন দেখা দিলেও সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে কোন পদক্ষেপ না নেওয়ায় স্থানীয়দের উৎপাদিত সবজি বিক্রির জন্য আশপাশের বাজারে নিয়ে যেতে পারছেন না। ফলে সবজি নষ্ট হয়ে লোকসান গুনতে হচ্ছে কৃষকদের। এতে এলাকাবাসির মাঝে চরম ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।

কিশোরগঞ্জের এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আমিনুর রহমান জানান, হোসেনপুর-পাকুন্দিয়া সড়কের যান চলাচল স্বাভাবিক রাখতে ও জনগণের দুর্ভোগ লাগবে নদীর পানি প্রবাহের জন্য শীঘ্রই ভাঙ্গনের স্থানে মোটা আরসিসি পাইপ দিয়ে মাটি ভরাট করে কার্যকরী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর