• সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০৮:৪২ পূর্বাহ্ন
  • Bengali Bengali English English
নোটিশ :
* ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে দেশবাসীকে বীরযোদ্ধা অনলাইন পত্রিকার পক্ষ থেকে জানাই প্রাণ ঢালা অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা * বিভিন্ন বিভাগ, জেলা ও উপজেলাতে অভিজ্ঞ সংবাদকর্মী  আবশ্যক। আগ্রহীদের নিম্নে ঠিকানায় যোগাযোগ করার জন্য জানানো যাচ্ছে।

হাসপাতালের ৩ কর্মচারিকে পেটালো আ’লীগ নেতার দুই ছেলে

বীরযোদ্ধা / ২৪৬
প্রকাশিত : ৮:৩৫ পিএম, (সোমবার) ৫ জুলাই ২০২১

মোহাম্মদ শাহিন, মাদারগঞ্জ (জামালপুর) :

মাদারগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের ওষুধ ও চিকিৎসা সামগ্রী টেন্ডারের বিডি ফেরত না পেয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্র ভাঙচুর ও হিসাবরক্ষকসহ তিন কর্মচারিকে পিটিয়ে আহত করেছে মামুন ও নাবিল নামের দুই ভাই। ওরা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও জেলা পরিষদ সদস্য দৌলতুজ্জামান দুলালের ছেলে বলে জানা গেছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের হিসাররক্ষক জাহা আলম জানান, মামুন ও নাবিল ঢাকার এক ঠিকাদারের নামে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের ওষুধ ও চিকিৎসা সামগ্রীর টেন্ডার জমা দেয়। বেশ কিছুদিন ধরে তারা নিয়ম বর্হিভুতভাবে কোনো রকম ডকুমেন্ট ছাড়াই বিডি (ব্যাংক ড্রাফট) ফেরত নিতে চাপ দিয়ে আসছিলো।

সোমবার মামুন ও তার ভাই নাবিল অফিসে এসে বিডি ফেরত চায়। তাদের কাছে বৈধ ডকুমেন্ট দেখতে চাওয়ায় দুজন উত্তেজিত হয়ে হিসাবরক্ষকের ওপর চড়াও হয় এবং মারধর করে। এ সময় সহকারী হিসাবরক্ষক বেলাল হোসেন ও অফিস স্টাপ মোশারফ হোসেন এগিয়ে এলে তাদেরকেও মারধর করে এবং অফিস কক্ষ, ল্যাপটপ ভাঙচুর ও অফিস ফাইল তছনছ করে চলে যায়। তিনিসহ ৩জন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত নাবিল জানান, বিডির টাকা নিয়ে ঝামেলা হয়েছে তা সত্য। আমি নিজেও সেখানে উপস্থিত ছিলাম। ওরাই আমার বড় ভাইকে মারধর করেছে। আমাদের দ্বারা কোনো মারধরের ঘটনা ঘটেনি। এইটা আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: সাইফুল ইসলাম জয় জানান, ঘটনা সত্য, মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর