• সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:১৯ পূর্বাহ্ন
  • Bengali Bengali English English
নোটিশ :
* ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে দেশবাসীকে বীরযোদ্ধা অনলাইন পত্রিকার পক্ষ থেকে জানাই প্রাণ ঢালা অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা * বিভিন্ন বিভাগ, জেলা ও উপজেলাতে অভিজ্ঞ সংবাদকর্মী  আবশ্যক। আগ্রহীদের নিম্নে ঠিকানায় যোগাযোগ করার জন্য জানানো যাচ্ছে।

শেরপুরে অস্ত্র দেখিয়ে প্রতিপক্ষকে হুমকি

বীরযোদ্ধা / ১৮
প্রকাশিত : ২:৫৪ পিএম, (মঙ্গলবার) ২০ এপ্রিল ২০২১

নাজমুল হোসাইন, শেরপুর :

শেরপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে আগ্নেয়াস্ত্র প্রদর্শনের সময় বাড়ির লোকজনের প্রতিরোধের মুখে আগ্নেয়াস্ত্র ও মোটরসাইকেল ফেলে রেখে পালিয়েছে তিন ব্যক্তি।

সোমবার (১৯ এপ্রিল) বিকেলে সদর উপজেলার গাজীরখামার ইউনিয়নের চকপাড়া গ্রামের ওই ঘটনাটি।

খবর পেয়ে পুলিশ ওই আগ্নেয়াস্ত্র ও মোটরসাইকেলটি উদ্ধার। তবে এ ঘটনায় কেউ আটক হয়নি।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে সদর উপজেলার গাজীরখামার চকপাড়া গ্রামের আন্তাজ আলীর পরিবারের সঙ্গে একই গ্রামের উসমান গনির পরিবারের জমি সংক্রান্ত বিরোধ ও শত্রুতা চলে আসছিল। এর জের ধরে সোমবার বিকেলে উসমান গনি, তার ভাই শহিদুল ইসলাম ও উসমানের ছেলে আকাশ একটি মোটরসাইকেল যোগে আন্তাজ আলীর চকপাড়া গ্রামের বাড়িতে গিয়ে রিভলবার দেখিয়ে তাকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়।

এ সময় আন্তাজ আলীর বাড়ির লোকজন তাদের প্রতিরোধ করেন। একপর্যায়ে এলাকাবাসির সহায়তায় আন্তাজ আলীর লোকজন উসমান গনি, শহিদুল ও আকাশকে আটকের চেষ্টা করলে তারা রিভলবার ও তাদের ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটি ফেলে পালিয়ে যায়।

খবর পেয়ে শেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মদ হান্নান মিয়া, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন, এসআই মো. সুজাউদদৌলাসহ পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে রিভলবার ও মোটরসাইকেলটি উদ্ধার থানায় নিয়ে আসে। তবে ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

শেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মদ হান্নান মিয়া বলেন, এ ঘটনায় সদর থানায় জিডি হয়েছে। জড়িতদের গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে। সেই সঙ্গে পুলিশ ঘটনাটি গুরুত্বের সঙ্গে তদন্ত করছে বলেও তিনি জানিয়েছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর