• মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০২:৩০ অপরাহ্ন
  • Bengali Bengali English English
নোটিশ :
* ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে দেশবাসীকে বীরযোদ্ধা অনলাইন পত্রিকার পক্ষ থেকে জানাই প্রাণ ঢালা অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা * বিভিন্ন বিভাগ, জেলা ও উপজেলাতে অভিজ্ঞ সংবাদকর্মী  আবশ্যক। আগ্রহীদের নিম্নে ঠিকানায় যোগাযোগ করার জন্য জানানো যাচ্ছে।

ভৈরবে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষ, নিহত ২

বীরযোদ্ধা / ৪৮
প্রকাশিত : ৪:২১ পিএম, (শনিবার) ১৭ এপ্রিল ২০২১

কিশোরগঞ্জ সংবাদদাতা :

আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ভৈরব উপজেলার খলাপাড়া ও লুন্দিয়া গ্রামে শনিবার দুপুরে দুপক্ষের সংঘর্ষে দুই যুবক নিহত হয়েছেন। সংঘর্ষের পর উভয় পক্ষের প্রায় অর্ধশত বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাট হয়েছে।

নিহতরা হলেন, শেখ পাভেল (২৫) ও শেখ মকবুল (৩৫)।

শেখ পাভেল লুন্দিয়া গ্রামের শেখ খালেকের ছেলে ও শেখ মকবুল খলাপাড়া গ্রামের মোতালিব মিয়ার ছেলে শেখ মকবুল (৩৫)। দুই গ্রামের শিকদার বাড়ি ও শেখ গোষ্ঠির মধ্য ওই সংঘর্ষ হয়।

গুরুতর আহত ৫ জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত নিহতদের মরদেহ ভৈরব সরকারি হাসপাতালে পড়ে রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, দুই গ্রামের দুই গোষ্ঠির আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সকাল ৯ টায় খলাপাড়া গ্রামে শিকদার বাড়ি ও শেখ বাড়ির মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। দুপুর ১২টায় পুনরায় লুন্দিয়া গ্রামে পাগলা বাড়ি ও মেনার বাড়ির মধ্যে ওই সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে।

এ সময় উভয়পক্ষের সংঘর্ষে দুজন নিহত ও কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়। নিহতরা একই বংশের বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও আহত কালা মিয়া জানায়, গ্রামে দুই পক্ষের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এই ঘটনাটি ঘটে। দীর্ঘদিন যাবত দুটি পক্ষ গ্রামের নানান কাজে আধিপত্য বিস্তারের চেষ্টা করছিল।

শনিবার সকালে ধান মাড়াইকে কেন্দ্র করে প্রথমে ঝগড়ার সৃষ্টি হয়। তারপর দ্বিতীয় দফায় দুপুর ১২টায় আবারও দুই পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লে দুজন নিহত হন।

ভৈরব থানার ওসি ( তদন্ত) কাজী মাহফুজ জানান, দুই গ্রামের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এ সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়েছে। সংঘর্ষের সময় দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে দুজন মারা গেছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর