• সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১২:৫৭ পূর্বাহ্ন
  • Bengali Bengali English English
নোটিশ :
* ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে দেশবাসীকে বীরযোদ্ধা অনলাইন পত্রিকার পক্ষ থেকে জানাই প্রাণ ঢালা অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা * বিভিন্ন বিভাগ, জেলা ও উপজেলাতে অভিজ্ঞ সংবাদকর্মী  আবশ্যক। আগ্রহীদের নিম্নে ঠিকানায় যোগাযোগ করার জন্য জানানো যাচ্ছে।

ভালুকায় দুই বন প্রহরীকে গণধোলাই

বীরযোদ্ধা / ১৫৭
প্রকাশিত : ৪:৩২ পিএম, (শনিবার) ১ মে ২০২১

আবু ইউসুফ, ভালুকা (ময়মনসিংহ) :

ভালুকা উপজেলার ধামশুর মৌজার ১২৫৮নং দাগে সৈয়দ নাজমুল হক তার নিজস্ব বাড়ির সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করার সময় হবিরবাড়ি বিট অফিসের দুই বন প্রহরী রুবেল ও মকবুল হোসেন ৫০হাজার টাকা ঘুষ দাবি করলে এলাকার নারী-পুরুষ সম্মিলিত ভাবে ঝাটা, লাঠিসোঠা নিয়ে হামলা চালিয়ে গণধোলাই দিয়েছে।

খবর পেয়ে ভালুকা মডেল থানা পুলিশ ও বনের লোকজন গিয়ে তাদেরকে উদ্ধার করে। ঘটনাটি উপজেলার আখালিয়া গ্রামে আজ শনিবার বেলা ১১টার দিকের। এ ঘটনায় উভয় পক্ষ থানায় অভিযোগ দিয়েছেন।

স্থানীয়রা জানায়, সৈয়দ নাজমুল হক আখালিয়া এলাকায় ১২৫৮নং দাগে ১ একর ৫ শতাংশ জমি ক্রয় করে শনিবার সকালে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ শুরু করে হঠাৎ করে বন প্রহরী রুবেল ও মকবুল হোসেন গিয়ে নাজমুল হকের কেয়ারটেকার বাবুল মিয়ার কাছে ৫০হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন। প্রতি উত্তরে বাবুল বন বিভাগের লোকজনকে জানায় এ জমি সিএস, আরওআর এর জমি বর্তমান বিআরএস পর্যন্ত আমাদের নামে চূড়ান্ত হয়েছে। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে দুই বন প্রহরী বাবুলের ওপর হামলা চালায়। স্থানীয় লোকজন খবর পেয়ে নারী পুরুষ ঝাড়ু, লাঠিসোঠা নিয়ে বনের লোকজনের ওপর হামলা পাল্টা হামলা চালিয়ে গণধোলাই দেয়। এক পর্যায়ে রুবেল ও মাকবুল দৌড়ে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে ভালুকা রেঞ্জ কর্মকর্তা মোজাম্মেল হোসেন ভালুকা মডেল থানা পুলিশসহ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে ওই দুই প্রহরী আত্মগোপন থেকে বের হয়ে আসে। ঘটনার পর বাবুল, বন প্রহরি রুবেল ও মকবুল হোসেন ভালুকা সরকারি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দা রহিমা খাতুন জানান, আমরা বনের লোকজনের অত্যাচারে অতিষ্ট। আমরা যদি একটি পানির খাওয়ার জন্য টিউবওয়েল স্থাপন করি তাহলেও বন প্রহরী রুবেল গংদেরকে টাকা দিতে হয়।

বাবুল জানান, এ জমিতে বনের কোনো দাবি নেই তারপরও রুবেল ও মকবুল এসে আমার কাছে ৫০হাজার টাকা ঘুষ দাবি করে। সেই টাকা দিতে অস্বীকার করলে তারা দুজনে আমার ওপর হামলা করে আমাকে আহত করে।

ভালুকা মডেল থানার এস আই বিল্লাল হোসেন জানান, সীমানা প্রাচীর নির্মাণ কাজ বন্ধ করা হয়েছে। জমির মালিকদেরকে তাদের কাগজ পত্র নিয়ে থানায় আসতে বলা হয়েছে।

ভালুকা রেঞ্জ কর্মকর্তা মোজাম্মেল হোসেন জানান, স্থানীয় লোকজন আমার দুই স্টাফের ওপর হামলা করে আহত করেছে। তারা বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। জমির মালিকদেরকে তাদের কাগজপত্র নিয়ে অফিসে আসতে বলেছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর